ঢাকা শিশু পার্কঃ অভিভাবকদের আবশ্যিক গাইড

শহীদ জিয়া শিশু পার্ক নামে পরিচিত ঢাকা শিশু পার্কটি (Dhaka Shishu Park) দেশের সবচেয়ে প্রাচীন শিশুপার্ক হিসাবে ১৯৭৯ সালে আত্নপ্রকাশ করে। ১৩ একর জমির উপর প্রতিষ্ঠিত ঢাকা শিশু পার্কটি সরকারীভাবে স্থাপিত প্রথম শিশু পার্কটি ১৯৮৩ সালে শিশুদের বিনোদন নিশ্চিত করার লক্ষ্যে আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু করে।

২২ আগস্ট, ২০২২ পর্যন্ত প্রাপ্ত তথ্যানুযায়ী, পার্কটি এই মুহুর্তে বন্ধ আছে। তবুও, আমি জোর দিয়ে পরামর্শ দিব, আপনি ভ্রমণচারীর ফেসবুক গ্রুপে প্রশ্ন করে, তারপর রওনা দিবেন।

শিশু পার্কটি সবশ্রেনীর মানুষের কাছে অত্যন্ত জনপ্রিয় এবং তার অন্যতম কারন হলো পার্কটির আকর্ষণীয় রাইড এবং স্বল্প খরচ। বর্তমানে পার্কটি স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয়ের আওাতাধীনে ঢাকা সিটি কর্পোরেশন পরিচালনা করে আসছে।

তো, চলুন বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক!

শিশু পার্ক কোথায় অবস্থিত?

ঢাকার প্রাণকেন্দ্র শাহবাগে শিশু পার্ক অবস্থিত। শাহবাগ মোড় থেকে পূর্বদিকে রমনা পার্কের বিপরীত পার্শ্বে পার্কটির অবস্থান।

শিশু পার্ক বন্ধ ও খোলার সময়সূচী

রবিবার ও বুধবার সর্বসাধারনের জন্য ঢাকা শিশু পার্ক বন্ধ থাকে। তবে বুধবার দুপুর ২ টা থেকে বিকাল ৪.৩০ পর্যন্ত সুবিধাবঞ্চিত ও দরিদ্র শিশুদের জন্য পার্কটি খোলা থাকে। সপ্তাহের বাকী যে দিনগুলো খোলা থাকে তার সময়সূচী নিচের টেবিলে দেখুন-

মাসদিনসময় (খোলা থাকে)
অক্টোবর-মার্চসোম-শনি (শুক্র ও বুধবার বাদে)দুপুর ১ টা থেকে সন্ধা ৭ টা পর্যন্ত
এপ্রিল-সেপ্টেম্বরসোম-শনি (শুক্র ও বুধবার বাদে)দুপুর ৩ টা থেকে রাত ৮ টা পর্যন্ত
 শুক্রবারদুপুর ২.৩০ থেকে সন্ধা ৭.৩০ পর্যন্ত
ঢাকা শিশু পার্ক সময়সূচী

ঢাকা শিশু পার্কে যা যা আছে

Dhaka Shishu Park
ঢাকা শিশু পার্কের প্রবেশ মুখের মনোরম সবুজ প্রাঙ্গন

শিশু পার্কের প্রায় প্রত্যেকটি জিনিসের ভেতরকার নিহিত উদ্দেশ্যই হল শিশুর আনন্দ-বিনোদন নিশ্চিত করা।  বলাই বাহুল্য শিশু পার্কে বাচ্চাদের আকর্ষণীয় জিনিস থাকবে। এজন্য ঢাকার এই শিশু পার্কটিতে রয়েছে বাচ্চাদের খেলাধুলা-আনন্দ-বিনোদনের জন্য ১২ টি মজার রাইড। এছাড়া বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর পক্ষ থেকে ঢাকা শিশু পার্কে একটি জেট বিমান উপহার দেওয়া হয়

জানেন কি? ভ্রমণচারীর ফেসবুক গ্রুপে ভ্রমণ সম্পর্কিত সমসাময়িক যেকোনো প্রশ্ন করে তাৎক্ষনিক উত্তর পাওয়া যায়। যুক্ত হতে এখানে ক্লিক করুন।

তবে দুঃখজনক হলেও সত্য কর্তৃপক্ষে যথাযথ পরিচর্যার অভাব এবং মেয়াদ উত্তীর্ণ হবার কারনে ১২ টি সচল নেই, আছে ৬ টি।  তবে পার্ক কর্তৃপক্ষ বেশ কিছু উন্নয়ন প্রকল্প হাতে নিয়েছে। যার  মধ্যে ২০১৯-২০২০ সালে কিছু সম্পন্ন হয়। আশা করা  যায় এতে করে পার্কের হারানো জৌলুস ফিরে এসেছে।

সচল রাইডগুলো কিন্তু পুরোপুরি কর্মক্ষম রয়েছে। এবং সবচেয়ে বড় কথা সেগুলোও  দারুন সব রাইড। ২০২০ সাল অব্দি চলা উন্নয়ন কর্মকান্ডের পূর্বে সচল ও নিশ্চল থাকা রাইডগুলোর নাম আমি আপনাকে বলে দিচ্ছি।

ঢাকা শিশু পার্কের রাইডসমূহ

  • উড়ন্ত বিমান
  • উড়ন্ত নভোযান
  • রোমাঞ্চ চক্র
  • আনন্দ ঘূর্ণি
  • বিস্ময় চক্র
  • এসো গাড়ি চড়ি
  • ছোট মনিদের রেল গাড়ী
  • চাকা পায়ে চলা
  • লম্ফ ঝম্ফ
  • ঝুলন্ত চেয়ার
  • ফুলদানী আমেজ
  • এফ-৬ জঙ্গি বিমান

তবে অভিভাবকদের জন্য আনন্দের বিষয় হলো কর্তৃপক্ষের হাতে নেওয়া উন্নয়ন প্রকল্পগুলি শেষ হলে  শিশুদের জন্য  আরও উত্তেজনাকর সব রাইড যুক্ত হবে, এমনই ইঙ্গিত দিয়েছে পার্ক কর্তৃপক্ষ।

শিশু পার্ক কিভাবে যাব?

প্রথমে শাহবাগে আসুন। রাজধানীর এহেন কোনো স্থান আছে বলে আমার জানা নেই যেখান থেকে শাহবাগে বাসে করে আসা যায়না। শাহবাগ মোড়ে নেমে পূর্বদিকে মতিঝিল বরাবর সড়ক ধরে ২ মিনিট হাটতে থাকুন। রাস্তার ডান পাশে এবং রমনা পার্কে বিপরীত পাশেই দেখতে পাবেন ঢাকা শিশু উদ্যান।

শিশু পার্কে প্রবেশ ও রাইড মূল্য

ঢাকা শিশু পার্কে প্রবেশ মূল্য ১৫ টাকা। প্রতিটি রাইডে চড়ার জন্য টিকেট মূল্য ১০ টাকা। শাহবাগ শিশু পার্কে অন্যান্য পার্কের মত প্রত্যেকটি রাইডের পাশে আলাদা করে টিকিট কাউন্টার নেই। প্রবেশ গেটের উভয় পাশে অবস্থিত দুইটি টিকিট কাউন্টারে প্রবেশ টিকিট ও রাইডে  আরোহনের টিকিট বিক্রয় করা হয়।

অতএব, প্রবেশের সময় একবারে রাইডগুলোর টিকিট কিনে নেওয়া যাওয়া উচিত। উল্লেখ্য, কয়েকটি রাইডে বাচ্চাদের একা চড়ার অনুমতি নেই। সেসব রাইডে অভিভাবককে বাচ্চা সাথে নিয়ে চড়তে হবে। এমন ক্ষেত্রে অভিভাবক ও শিশু দু’জনেরই আলাদা উক্ত রাইডের জন্য টিকেট সংগ্রহ করতে হবে।

প্রতি বুধবার অসহায়, অসচ্ছল ও সুবিধাবঞ্চিত শিশুরা বিনামূল্যে পার্কে প্রবেশ করতে পারে। এদিন সর্বসাধারনের প্রবেশ বন্ধ থাকে।

অভিভাবকদের জন্য সতর্কতা

এডিটোরিয়াল নোটস
শিশুপার্কে সাধারনত ব্যাপক ভিড় হয়ে থাকে; আর ছুটির দিনে তো কথায় নেই। একারনে মাঝেমধ্যে ভিডের মাঝে শিশুদের হারিয়ে যাবার সম্ভাবনা উড়িয়ে দেওয়ার মত না। তাছাড়া একা ছেড়ে দিলে রাইডে চড়তে গিয়ে বা যেকোনো কারনে বিপদ হতে পারে। অতএব বিন্দুমাত্র অবহেলা না করে সর্বদা বাচ্চাকে চোখে চোখে রাখবেন এবং ভুলেও একা ছেড়ে দিবেন না।

শেষকথা

দেশের সবচচাইতে পুরনো এই পার্কটি নি।সন্দেহে শিশুদের শিশুকালকে আনন্দঘন করার মত দারুনসব আকর্ষণীয় জিনিস নিয়ে অপেক্ষা করছে।

কবে যাচ্ছেন আপনার শিশুকে নিয়ে  কমেন্ট করে জানাবেন কিন্তু!  আর হ্যা পুরো লেখাটিতে তথ্যগত ভুল থাকলে মন্তব্য করে আমাকে বেশি কথা শুনাতে দ্বিধা করবেন না তবে দরকারী কোনো তথ্য দিয়ে উপকার করে থাকলে ধন্যবাদ দিতে হবেনা ! 😊

সচেতন অভিভাবকেরা বার বার যা জিজ্ঞাসা করে থাকে

বাংলাদেশের জাতীয় শিশু পার্ক কোনটি?

শহীদ জিয়া শিশু পার্ক, ঢাকা

শিশু পার্ক বন্ধ কবে?

রবিবার ও বুধবার সর্বসাধারনের জন্য ঢাকা শিশু পার্ক বন্ধ থাকে।

ভ্রমণ, লেখালেখি ও সাংবাদিকতায় আসক্ত। কাচ্চির আলু আর দুধ খেজুরে পিঠার পাগল। আমাকে খুজে পাবেন ফেসবুক, টুইটারে।


Warning: Undefined variable $post in /home/vromvyze/public_html/blog/bn/wp-content/plugins/gp-premium/elements/class-hooks.php(215) : eval()'d code on line 11

Warning: Attempt to read property "post_author" on null in /home/vromvyze/public_html/blog/bn/wp-content/plugins/gp-premium/elements/class-hooks.php(215) : eval()'d code on line 11

Warning: Undefined variable $post in /home/vromvyze/public_html/blog/bn/wp-content/plugins/gp-premium/elements/class-hooks.php(215) : eval()'d code on line 12

Warning: Attempt to read property "post_author" on null in /home/vromvyze/public_html/blog/bn/wp-content/plugins/gp-premium/elements/class-hooks.php(215) : eval()'d code on line 12
Twitter | Facebook

“ঢাকা শিশু পার্কঃ অভিভাবকদের আবশ্যিক গাইড”-এ 14-টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

কেন আপনি ভ্রমণচারীর উপর আস্থা রাখতে পারেন?

X

Pin It on Pinterest

Shares
Share This